174226

মাসিক নকীবের সাহাবী সংখ্যা: অলস দুপুরে আপনার বন্ধু

ওমর আলফারুক ।।

এই সময়ে সার্ভাইভ করা রকমারি নাম ও শিরোনামের অজস্র পত্রিকার ভিড়ে ‘মাসিক নকীব’ তার জায়াগাটা আলাদা করে নিয়েছে৷ অবিচল লক্ষ্য সামনে রেখে নিয়ত এগিয়ে যাচ্ছে মঞ্জিলের আরও কাছাকাছি৷

মিডিয়ার যুগ চলছে ৷ অপসংস্কৃতির এই করাল গ্রাসের বিপক্ষে দাঁড়াতে তাই মিডিয়ায় নয়া বিপ্লবের বিকল্প নেই৷ আগাগোড়া পাঠে সেই সংকল্পেরই একটি ক্ষুদ্র কিন্তু পরিশীলিত প্রয়াস মনে হলো নকীব পরিবারকে৷

নিয়মমাফিক প্রকাশনা, সময়োপযোগী বিষয় নির্বাচন, যশস্বী লেখদের রচনায় সমৃদ্ধ প্রতিটি সংখা সঙ্গত কারণেই সব অঙ্গনের সব বয়সের পাঠকের নজর কাড়তে সক্ষম হচ্ছে৷

বরাবরের মতো নকীবের এবারের সংখ্যাটিও দেশসেরা লব্ধপ্রতিষ্ঠ লেখকদের লেখায় সমৃদ্ধ৷ এবারের এই সাহাবা সংখ্যায় আ,ফ,ম, খালিদ হুসাইন ‘শিশু কিশোরদের অনুপম আদর্শ সাহাবায়ে কেরাম’, মুহাম্মাদ যাইনুল আবিদীন ‘গল্প শোনো প্রিয় নবির’, মুসা আল হাফিজ ‘সোনালি ডানার পাখি’, মুফতি হাবিবুর রহমান মিছবাহ ‘কে হতে চাও মহাবীর খালিদ’, ইয়াহইয়া ইউসুফ নদভি ‘এক জীবন্ত শহিদের বীরত্ব’, জহির উদ্দিন বাবর ‘খুলাফায়ে রাশেদিন: যারা ছিলেন পৃথিবীর সেরা শাসক’, হুমায়ুন আইয়ুব ‘মদিনার গল্প’ মুনিরুল ইসলাম ‘একটি ফুলের তিনটি গল্প’, এহসান বিন মুহাজির ‘দুই কিশোর সাহাবির বীরত্বগাথা’, রুহুল আমিন সাদি ‘ফেরেশতারা নেমে এসেছিলেন পৃথিবীর কাছাকাছি’, মাসউদুল কাদির ‘সাহাবাজীবনে নবিপ্রেমের স্পন্দন’ এবং রেজাউল করিম আবরার ‘নবি এবং সাহাবাদের রসিকতা’ শিরোনামে লিখেছেন৷

এছাড়া আরও বেশ কয়েকটি তত্ত্ব ও তথ্যসমৃদ্ধ লেখা এবং সাথে থাকছে তাদের নিয়মিত বিভাগসমূহ৷

এবারের এই সংখ্যাটি বিষয় বৈচিত্রে, লেখা নির্বাচনে এবং প্রচ্ছদ ও অলঙ্করণে অন্য যেকোন সংখ্যার চেয়ে বেশ ভালো মনে হয়েছে৷ যেকোন সাহিত্যামোদীর জন্য সাহাবা সংখ্যা হতে পারে সেরা একটি উপহার৷

প্রিয় পাঠক, সংখাটি নিয়ে আপনিও বসে যেতে পারেন কোন এক অলস দুপুর বা পড়ন্ত বিকেলে, নীরবতার চেয়ে মাচ-বেটার টাইম কাটবে এই গ্যারান্টি দিতে পারি৷

সুন্দর ও সমৃদ্ধ এই সংখ্যাটির নির্ধারিত মূল্য মাত্র পনের টাকা৷ এতো কম বিজ্ঞাপন নিয়ে এতো কম মূল্যে এতো ব্যয়বহুল একটি পত্রিকা সার্ভ করা আদৌ চাট্টিখানি কথা নয়৷ মহাজাগতিক এই খেদমতের জন্য নকীব পরিবারকে শুকরিয়া ও শুভকামনা…

হুআ/আরএম

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.