175278

‘আল্লামা আবুল ফাতাহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়া রহ. ছিলেন আদর্শ জাতি গঠনের অন্যতম দিকপাল’

আওয়ার ইসলাম: আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, বেফাকের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব ও মালিবাগ জামিয়ার সাবেক ভাইস প্রিন্সিপাল মরহুম আল্লামা আবুল ফাতাহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়া রহ. ছিলেন আদর্শ জাতি গঠনের অন্যতম দিকপাল৷ জাতীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন কাজে তিনি ছিলেন আমার একান্ত অনুচর, দক্ষিনহস্ত৷ জাতীয় দূর্যোগে অনেকেই ভড়কে যান৷ লোভে, ভয়ে পরাস্ত হয়ে পড়েন৷ কিন্তু আবুল ফাতাহ সবসময়ই দৃঢ়চেতা এবং জাতিকে সঠিক দিকনির্দেশনা দেয়ার ক্ষেত্রে ছিলেন অবিচল৷

তিনি ছিলেন আকাবির ও আসলাফের অনুপম নমুনা৷ সাহাবীদের জামাতের উপমা৷ তার অন্তর্ধানে জাতি বিরাট এক ব্যক্তিত্বকে হারিয়েছে৷ এই ক্ষতি কখনোই পূরণ হবার নয়৷ তিনি সুউচ্চ চিন্তাচেতনা লালন করতেন৷ আমাদেরকে আল্লামার লালিত চেতনাকে সামনে এগিয়ে নিতে হবে এবং তার আজীবন অনুসৃত আদর্শকে চর্চা করতে হবে৷ তার মত ইসলামী স্কলার ও বুদ্ধিজিবী, নির্লোভ মহামানব বর্তমান বস্তুবাদী পৃথিবিতে সত্যই বিরল৷

বৃহস্পতিবার ঢাকার জামিয়া শারইয়্যাহ মালিবাগ মাদরাসা মিলনায়তনে আয়োজিত আল্লামা আবুল ফাতাহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়া রহ. জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা ও স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন৷

জামিয়া রাহমানিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহফুজুল হক বলেন, আজ সবাই দৃশ্যমান হতে চায়৷ কিন্তু পিছনে থেকে কাজ করা কর্মীর বড়ই অভাব৷ আল্লামা আবুল ফাতাহ সর্বদা নির্মোহ থেকে অগোচরে কাজ করেছেন৷ বেফাকের আজকের অবস্থানের পিছনে তার ভূমিকা অন্যতম৷ তিনি অনেক মৌলিক রচনাবলী জাতিকে উপহার দিয়েছেন৷ কিন্তু তার সময়ে বাংলা চর্চা ছিল কষ্টসাধ্য৷

পাথেয়র সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন সিরাজী বলেন, আশির দশকে আল্লামা ইসলামী ছাত্র ঐক্য পরে লাজনাতুত্বলাবা গঠনে সম্পৃক্ত থেকে একদল নির্লোভ, কর্মঠ, আকাবির ও আসলাফের চেতনায় উজ্জবীত কর্মবীর তৈরি করেছিলেন৷ আজকে যারা জাতিকে বুদ্ধিবৃত্তিক নেতৃত্ব প্রদান করছেন তাদের অধিকাংশই তার শিষ্য৷ তার কর্মের সুফল জাতি আজ ভোগ করছে৷

জামিয়া শারইয়্যাহ মালিবাগের প্রিন্সিপাল আল্লামা আশরাফ আলীর সভাপতিত্বে ও মুফতি আ. সালামের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন মাওলানা আব্দুল গাফফার, মাওলানা ইয়াহইয়া মাহমুদ, মাওলানা জয়নুল আবেদীন, মুফতি তৈয়ব প্রমুখ৷

-এএ

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.