176734

তরুণদের লেখালেখিতে এগিয়ে আসার আহ্বান: আল্লামা আব্দুর রহমান হাফেজ্জী

আল আমিন বাপ্পি
ময়মনসিংহ থেকে>

ময়মনসিংহের জামিয়া আরাবিয়া মাখযানুল উলুমের ব্যবস্থাপনায়, বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের আয়োজনে জামিয়ার মিলনায়তনে শুরু হয়েছে লেখালেখির বুনিয়াদি কর্মশালা।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে জামিয়া আরাবিয়া মাখযানুল উলুমের মোহতামিম আল্লামা আব্দুর রহমান হাফেজ্জীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান শুরু হয়।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি শিক্ষার্থী ও আলেমদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘লেখালেখির ময়দানে আলেম এবং ছাত্র সমাজকে সক্রিয় ভাবে কাজ করতে হবে’।

বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের সভাপতি জহির উদ্দিন বাবর বলছেন, রাজনৈতিক বা বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে লিখাটা জরুরী না, বরং আমরা প্রকৃতি নিয়ে লিখতে পারি, সাহিত্যের মাঝে আমরা কঠিন কোন শব্দ ব্যবহার না করে সহজে বোধগম্য হয় এমন শব্দ চয়ন করবো। আমার ইতিবাচক রাখবো দৃষ্টিভঙ্গি এবং নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি পরিত্যাগ করবো।

আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক মুফতি হুমায়ুন আইয়ুব বলেন, লেখক হতে হলে নিবিড় পাঠক হতে হবে। ভালো পাঠক হতে হলে ৪টি গুণ থাকতে হবে। ক. পড়ার আগে নিজেকে পড়তে হবে। অর্থাৎ সুক্ষ্ম থেকে সুক্ষ্ম বিষয়গুলোকেও নিজের মাঝে আনতে হবে।

খ. বই পড়ার ক্ষেত্রে প্রতিটি শব্দ কানে বাজিয়ে বাজিয়ে পড়তে হবে। বই থেকে আমরা শব্দ নিবো, বাক্য নিবো, শব্দ শৈলী নিবো। কিন্তু বইয়ের চিন্তার সাথে আমাদের চিন্তাকে মিলানো যাবে না। আমাদের চিন্তা থাকতে হবে আমাদের আকাবিরগন যে শিক্ষা দিয়েছেন তার উপর।

গ. প্রকৃতিকে পড়তে হবে। ঘ. অভিজ্ঞতাকে পড়তে হবে।

বই কিনতে ক্লিক করুন

ইত্তেফাকুল উলামার সাহিত্য সম্পাদক মাওলানা আমির ইবনে আহমাদ বলেন, আমরা লেখালেখি করব, তবে এর জন্য আমাদের বেশভূষা ছেড়ে দিতে হবে না; বরং এই পোষাকেই আমরা যোগ্য লেখক হতে পারবো। তিনি ইসলামী লেখক ফোরামকে ময়মনসিংহে আসার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন।

জামিয়া আরাবিয়া মাখযানুল উলুমের নাযেমে তালিমাত মাওলানা আব্দুল্লাহ আর মুকাররামের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের সভাপতি জহির উদ্দিন বাবর, বার্তা টোয়েন্টিফোরের বিভাগীয় সম্পাদক মুফতি এনায়েত উল্লাহ, আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক মুফতি হুমায়ুন আইয়ুব, বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মুনীরুল ইসলামসহ প্রমুখ লেখিয়েগন।

-এএ

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.