177533

আদালতে বিশৃঙ্খলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: আইনমন্ত্রী

আওয়ার ইসলাম: আপিল বিভাগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদন শুনানিতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশানে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, আমি দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলতে চাই, দেশের কোনো প্রতিষ্ঠানকে অপমান বা অবমাননা করতে সরকার দেবে না। কারণ দেশের জনগণকে নিরাপদে থাকতে দেয়ার জন্য দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি রক্ষা করা এবং বিশৃঙ্খলা বন্ধ করা আমাদের দায়িত্ব। যারাই এরূপ আচরণ করবে, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সরকার বাধ্য হবে।

আদালতকক্ষে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের বিশৃঙ্খলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘অতীতেও আমরা দেখেছি, বিএনপিপন্থী আইনজীবী এবং বিএনপি-সমর্থক বহিরাগতরা তাদের বিরুদ্ধে আদালত কোনো আদেশ বা রায় দিলে তারা উশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করে। বিএনপির এই কর্মকাণ্ডে পরিষ্কারভাবে প্রতীয়মান হয়, বিএনপির আইনের শাসনের প্রতি কোনো শ্রদ্ধাবোধ নেই। বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর তাদের কোনো আনুগত্য নেই এবং বাংলাদেশের কোনো প্রতিষ্ঠান তাদের কাছে নিরাপদ নয়।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্ধারিত দিন ছিল আজ। এদিন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের ছয় সদস্যের বেঞ্চে প্রতিবেদন জমা দিতে রাষ্ট্রপক্ষ সময় চেয়ে আবেদন করলে আদালত আগামী ১১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদনটি জমা এবং এ বিষয়ে শুনানির জন্য ১২ ডিসেম্বর দিন নির্ধারণ করেন।

এর এক পর্যায়ে হইচই শুরু করেন বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা। এতে বিব্রত হয়ে বিচারপতিরা এজলাস কক্ষ ত্যাগ করে খাস কামরায় চলে যান। এরপর আদালতে অবস্থান নিয়ে দফায় দফায় হট্টগোল করেন বিএনপিপন্থি আইজীবীরা। কিছু সময় বিরতির পর আবার শুনানিতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা পরবর্তী শুনানির দিন আগামী ১২ ডিসেম্বরের পরিবর্তে ৮ ডিসেম্বর করার আবেদন জানান। কিন্তু তবে আপিল বেঞ্চ জানিয়ে দেন সেটি সম্ভব নয়।

-এএ

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.