113698

যে দেশে রয়েছে একটিমাত্র মসজিদ!

আওয়ার ইসলাম: মধ্য ইউরোপের স্থলবেষ্টিত প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্র স্লোভাকিয়া। দেশটির অফিসিয়াল নাম স্লোভাক রিপাবলিক। ২০১৬ সালের আদমশুমাররি অনুযায়ী, দেশটির মোট জনসংখ্যা ৫৪ লাখ ৩৫ হাজার ৩৪৩ জন।

২০১০ সালের আদম শুমারি অনুযায়ী, দেশটিতে মুসলমানদের সংখ্যা ১০ হাজার ৬০০ জন। জনসংখ্যার আনুমানিক প্রায় ২ শতাংশ। যদিও কিছু সংখ্যক মুসলমান বিশ্বাস করে, বর্তমানে মুসলমানদের সংখ্যা প্রায় ৫ শতাংশ। এ দেশে মুসলিমদের বসবাস থাকলেও পুরো দেশজুড়ে মসজিদের সংখ্যা মাত্র একটি।

চার ইমামের জীবনকথা

ইতিহাসের বরাতে জানা যায়, স্লোভাকিয়ায় ইসলামের আগমন হয় ১০ শতাব্দীতে। তৎকালীন মধ্য এশিয়ার কিছু গোত্র স্লোভাকিয়ায় গেলে সেখানে ইসলামের যাত্রা শুরু হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে অটোমান তুর্কিরা যখন মধ্য ইউরোপের দিকে অগ্রসর হতে থাকে তখন নতুন করে স্লোভাকিয়ায় ইসলামের যাত্রা শুরু হয়।

অটোমানরা কসোভো ও মোহাজ যুদ্ধে বিজয়ী হলে ইসলামের অভিযাত্রা নতুন গতি পায়। বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা এবং বোগেনভিলের স্থানীয় কিছু জনগণ ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয় নেয়।স্লোভাকিয়া দেশের এক মাত্র মসজিদের ভেতরের অংশ।

স্লোভাকিয়া চেকোস্লোভাকিয়ার অংশ থাকাকালে উসমানিরা বিজয় করেছিল এবং কিছুদিন পর তারা মোরাভিয়ান অঞ্চলের রাজধানী বোর্নো অঞ্চলটিও জয় করে নেন। ফলে তারা সেখানে কিছু মসজিদ-মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হয়। যদিও তুর্কিরা সেখানে দীর্ঘদিন ছিল না, কিন্তু তাদের এ ভূমিকার কারণে অনেকে ইসলামে দীক্ষিত হয়েছিল।

এসে গেল যাদুকরী মাদরাসা ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার

ইতিহাস থেকে জানা যায়, তুর্কিরা ইউরোপের মধ্যাঞ্চল ছেড়ে আসার পর মুসলমানরা সীমাহীন নির্যাতনের শিকার হয়। তাদের মসজিদগুলো সমূলে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। মাদ্রাসাগুলোতে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। ১৭৮২ খ্রিস্টাব্দে ধর্মীয় সহনশীলতা আইন পাস না হওয়া পর্যন্ত অনেকেই দেশে ছেড়ে অন্যত্র চলে যায়।

১৯১২ খ্রিস্টাব্দে অস্ট্রীয় সম্রাট ডিক্রি (ফ্রাঙ্কোস জোসেফ দ্বিতীয়) আইন পাস করেন এবং ইসলামকে একটি দেশীয় ধর্ম হিসেবে স্বীকৃতি দেন। ফলে তখন মুসলমানরা নতুন করে ধর্ম পালনে সুযোগ-সুবিধা পান। তখন দেশটিতে আবারও মসজিদ মাদ্রাসা নির্মিত হতে থাকে। বেশ কয়েকটি সেবাসংস্থা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি গঠিত হয় চেকোস্লোভাকিয়া ইসলামী ইউনিয়ন।

পরবর্তীতে চেকোস্লোভাকিয়া ইসলামী ইউনিয়ন বিভিন্ন প্রকাশনা ও একটি সংবাদপত্র (ইকো) প্রকাশ করে। এমনকি চেকোস্লোভাকিয়ান ভাষায় পবিত্র কোরআনের তিনটি অনুবাদও প্রকাশিত হয়।স্লোভাকিয়া দেশের এক মাত্র মসজিদ।

সম্পূর্ণ ফিতে নিন অ্যাকাউন্টিং ও ইনভেস্টরি সফটওয়ার

মুসলিম সংখ্যালঘুদের কার্যক্রম সমর্থন ও শিশুদের সহায়তা দিতে ইসলামী সংগঠন ও সমিতি বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যে ইসলামিক এন্ডোউমেন্ট সোসাইটি ও মুসলিমছাত্র সাধারণ ফেডারেশন অন্যতম।

এসব সংগঠন নিজেদের ধর্মীয় সংস্কৃতির উন্নতি ও মুসলিম উম্মাহর বিষয়গুলো নিয়ে সচেতনতা তৈরি এবং বিকাশে কাজ করে। অনুরূপভাবে ইসলামের রূপ-বৈচিত্র্য ও সৌন্দর্য তুলে ধরতে নানা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ব্যবসাকে সহজ করতে এলো বিসফটি!

আরএম/

ad

পাঠকের মতামত

৬ responses to “‘ধর্মীয় সব অঙ্গনের মতই ইসলামী অর্থনীতিতেও মনোযোগী হতে হবে’”

  1. FranFUg says:

    Amoxil Infection Des Sinus generic cialis overnight delivery Dapoxetina Compresse Amoxicillin Clav Er

  2. Kelvand says:

    Cialis Y Diabetes Levitra En Andorra Prix Cytotec Au Maroc viagra Cialis Alle Erbe Effetti Collaterali Xenical Vente Ligne

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *