124601

নানা রোগে ক্ষতির মুখে চা বাগান

আওয়ার ইসলাম: সবুজ গালিচামোড়া চা বাগানের নয়নাভিরাম রূপ দু’চোখ ভরে দেখতে ইচ্ছে হয়। কিন্তু যখন চা গাছের দুঃসময় ধেয়ে আসে। তখন সবুজময় চা গাছ সৌন্দর্য্য হারিয়ে হয়ে পড়ে ধূসর-ম্লান।রোগাক্রান্ত এসব গাছগুলো তখন প্রাণে বেঁচে উঠতে চায় বারবার। নতুন করে ‘দুটি পাতা একটি কুঁড়ি’ ছড়াতে চায় চা প্রেমীদের জন্য।

সম্প্রতি শ্রীমঙ্গল উপজেলার চা বাগানে দেখা গেছে, একটি চারা গাছে দু’টি রোগের প্রাদুর্ভাব। মৃত্যুর প্রহর গুনছে রুগ্ন সেইসব চা গাছ।

অভিজ্ঞ টি-প্লান্টার এবং বারোমাসিয়া চা বাগানের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক হক ইবাদুল বলেন, এ চাগাছ দু’টো রোগাক্রান্ত। রোগ দু’টি হলো: টি-টারমাইড (Tea-Termite)(বাংলায় বলে চায়ের উঁইপোকা)। অর্থাৎ চা গাছে উঁইপোকা আক্রমণ ঘটেছে।

ফাঙ্গাস ডিজিজেস (fungus disease) অর্থাৎ ছত্রাকজনিত রোগ। ইংরেজিতে এ ছত্রাকজনিত রোগকে বলা হয় Poria root disease এবং এর বৈজ্ঞানিক নাম Poria hypola teritia। এ ‘পুরিয়া’ ছত্রাকের কারণে শিকড় থেকে এ রোগের সৃষ্টি হয়ে আস্তে আস্তে উপরে উঠে আসে।

এ রোগের দমনপ্রক্রিয়া হলো- মাটিতে ছত্রাকনাশক প্রয়োগ করতে হবে। তবে সবচেয়ে উত্তম পন্থা হলো- ছত্রাকে আক্রান্ত চা গাছগুলো মাটি থেকে তুলে ফেলা।

টি-টারমাইড রোগ সম্পর্কে অভিজ্ঞ টি-প্লান্টার বলেন, এ রোগ থেকে বাগানের চা গাছগুলো বাঁচানোর অন্যতমপন্থা হলো মাটি খুঁড়ে উইপোকার রানীকে খুঁজে বের করে মেরে ফেলা। উইপোকার রানী মাটি ৩/৪ ফুট গর্তের নিচে থাকে। এ রানীই লাখ লাখ বাচ্চা তৈরি করতে সক্ষম।

ad

পাঠকের মতামত

One response to “প্রচণ্ড তাপদাহে স্বস্তির খবর দিলো আবহাওয়া অধিদপ্তর”

  1. junaid adib says:

    কোর্সের কথা আগে জানলে! অংসগ্রহণ করতাম। ধন্যবাদ আওয়ার ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *