137577

স্কুল-মাদরাসার শিক্ষকরা কোচিং না ছাড়লে চাকরি হারাবেন

আওয়ার ইসলাম: প্রশ্নফাঁস রোধ ও প্রতিষ্ঠানিক শিক্ষার মানোন্নয়নের কঠোর হচ্ছে সরকার। কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করতে উদ্যোগ নিচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে সারাদেশে কোচিং সেন্টার এবং এর সঙ্গে জড়িত শিক্ষকদের তালিকা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

গোয়েন্দা সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, সারাদেশে আড়াই লাখ কোচিং সেন্টারে প্রায় দুই লাখ শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যে জড়িত। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকাতেই রয়েছে প্রায় ২০ হাজার কোচিং সেন্টার, এতে জড়িত ৫০ হাজার শিক্ষক।

বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান বলছে, সর্বশেষ এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২৬ হাজার ১৮০টি। এর মধ্যে স্কুল ১৬ হাজার ১৯৭টি, কলেজ দুই হাজার ৩৬৫টি এবং মাদরাসা ৭ হাজার ৬১৮টি।

এসব প্রতিষ্ঠানে ৩ লাখ ৬০ হাজার ৬৪৮ জন শিক্ষক কর্মরত। এর মধ্যে যেসব শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যে জড়িত, তাদের বরখাস্ত করা হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিগগিরি এ বিষয়ে দিক-নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গোয়েন্দা সূত্র মতে জানা গেছে, প্রতিষ্ঠান প্রধানদের (প্রধান শিক্ষক, অধ্যক্ষ) কাছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি পাঠিয়ে কোচিং বাণিজ্যে জড়িত শিক্ষকদের প্রথমে সতর্ক করা হবে। তারপরও কোনো শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যে জড়িত থাকলে তাদের সংশ্লিষ্ট স্কুল, কলেজ ও মাদরাসা থেকে চাকরিচ্যুত করা হবে।

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

৩ responses to “যেভাবে গ্রেফতার হলেন ওসি মোয়াজ্জেম”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *