142610

ওয়াইফাই ব্যবহারের ক্ষতি এবং তা থেকে বাঁচার উপায়

আওয়ার ইসলাম: সবার ঘরে ঘরে ইন্টারনেট কানেকশন। ইন্টারনেটেরে জালে আবদ্ধ পুরো দেশ। আর এ ইন্টারনেট কানেকশন হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে ওয়াইফাই। কিন্তু, এই ওয়াইফাই কী শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয়? এত বেশি ওয়াইফাই ব্যবহারের কোনো প্রভাব কি আমাদের শরীরে পড়ে না?

ওয়াইফাই ব্যবহারের কয়েকটি ক্ষতিকর দিক হলো,  মনোযোগের সমস্যা, ঘুমের সমস্যা, মাঝেমধ্যেই মাথা যন্ত্রণা, কানে ব্যথা ও ক্লান্তি।

ক্ষতি থেকে বাঁচার উপায়-

১. বেডরুম বা রান্নাঘরে ওয়াইফাই’র রাউটার বসাবেন না।

২. যখন ব্যবহার করছেন না ওয়াইফাই বন্ধ রাখুন

৩. মাঝেমধ্যে কেবল-এর সাহায্যে ফোন ব্যবহার করুন। ওয়াইফাই বন্ধ রাখুন সে সময়ে।

৪. ঘুমানোর সময় ওয়াইফাই কানেকশন বন্ধ রাখুন।

ব্রিটিশ হেলথ এজেন্সির দাবি, বিভিন্ন পরীক্ষার মাধ্যমে দেখা গেছে, এই পদক্ষেপে ওয়াইফাই’র প্রভাব কমানো সম্ভব। তাই আপনার বাড়িতে ওয়াইফাই থাকলে, আপনিও মেনে চলুন এই সাবধানতা।

অারএম/

ad

পাঠকের মতামত

One response to “আল্লাহর সঙ্গে একান্তে আলাপন; ইতিকাফই মহান সুযোগ”

  1. Cecilstomi says:

    JWallet – платежный сервис нового поколения https://jwallet.cc/?ref=4900 Самые низкие %% за переводы. Банковские переводы в России, Украине и др. странах. WebMoney. Обменный сервис. Заработок

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *