145957

গোলান মালভূমি ইসরায়েলকে স্বীকৃতির চিন্তা ট্রাম্পের, এরদোগানের হুশিয়ারি

আওয়ার ইসলাম: এবার সিরিয়ার গোলান মালভূমি ইসরালের হিসেবে স্বীকৃতি দিতে চান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে সারাবিশ্বের সমালোচনা উপেক্ষা করে ফিলিস্তিনের জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন ট্রাম্প। যে কারণে তিন শতাধিক ফিলিস্তিনি শহীদ হন।

জানা গেছে, গোলান মালভূমি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র দশকের পর দশক ধরে যে নীতি অনুসরণ করে আসছে, তা থেকে সরে এসে ডোনাল্ড ট্রাম্প আকস্মিক জানিয়েছেন, তার প্রশাসন ওই অঞ্চলটিকে ইসরায়েলের বলেই স্বীকৃতি দেওয়ার কথা ভাবছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) এক টুইটে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। বলেন, ইসরায়েলের নিরাপত্তা ও আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার স্বার্থে এবং কৌশলগত কারণে গোলান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ইসরায়েলের উত্তরে সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের ৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত গোলান মালভূমির আয়তন প্রায় ১২শ’ বর্গ কিলোমিটার। ১৯৬৭ সালে আরব জোটের সঙ্গে যুদ্ধের সময় ইসরায়েল এটির দখল নিয়েছিল। তবে জাতিসংঘসহ বিশ্বের কোনো দেশ এই দখলের স্বীকৃতি দেয়নি।

এর পর সিরিয়া-ইসরায়েল দু’পক্ষেরই মতৈক্যে গোলানে অসামরিক জোন ঘোষিত হয়, যেখানে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা বাহিনীকে নিয়োজিত করা হয়।

আন্তর্জাতিক আইনে অবৈধ ঘোষণা থাকলেও গোলানে এখন ২০ হাজারের মতো ইসরায়েলির বসাবাস করছে। যুদ্ধের সময় তারা সেখানেই ছিল।

এদিকে ২০ হাজারের মতো সিরীয় নাগরিকও ওই অঞ্চলে বসবাস করেন। যাদের বেশিরভাগই দ্রুজ আরব।

শত বছরের এমন নীতি অমান্য করে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের সমালোচনা শুরু হয়েছে। কূটনীতিকরা এমন ঘোষণাকে ভালোচোখে দেখছেন না।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের সাবেক এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ও বর্তমানে কাউন্সিল অন ফরেন রিলেশন্স নামে একটি থিংক-ট্যাংকের প্রেসিডেন্ট রিচার্ড হ্যাস বলেন, ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে আমি একেবারেই একমত নই। কারণ এভাবে ইসরায়েলের সার্বভৌমত্ব ঘোষণা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রেজোল্যুশনের লঙ্ঘন হবে। রেজোল্যুশন অনুসারে যুদ্ধের পর কোনো অঞ্চল দখল করা যাবে না।

এদিকে অধিকৃত গোলান মালভূমি নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন টুইট নিয়ে কঠোর সমালোচনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান।

শুক্রবার ইস্তানবুলে ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) এক জরুরি বৈঠকে তিনি বলেন, গোলান মালভূমিকে কেন্দ্র করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের গতকালের দুর্ভাগ্যজনক বিবৃতি এ অঞ্চলকে নতুন সংকটের প্রান্তে নিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, গোলান মালভূমিতে দখলদারিত্ব বৈধকরণ করা হলে তা আমরা মেনে নেব না। এ রকম স্পর্শকাতর বিষয়ে ওআইসি নিরব থাকতে পারে না বলেও মন্তব্য করেছেন এরদোগান।

আরআর

ad

পাঠকের মতামত

৪ responses to “তরুণ প্রজন্মের ভবিষ্যত অনিশ্চয়তার মুখে: আল্লামা বাবুনগরী”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *