146001

বৈঠক শেষে তিন দিনের কর্মসূচি ঐক্যফ্রন্টের

আওয়ার ইসলাম: জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। মানববন্ধন, স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভা ও এপ্রিল মাসে বিভাগী ও জেলা পর্যায়ে কর্মী সমাবেম করবে ঐক্যফ্রন্ট।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর পুরানা পল্টনে ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে জোটের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ঐক্যফ্রন্ট নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না এই কর্মসূচি ঘোষণা দেন।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- অবিলম্বে নতুন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার দাবি, নিরাপদ সড়কের দাবি, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন, উপজেলা নির্বাচন এবং ডাকসু নির্বাচন ও ব্যবস্থাপনা, গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি এবং অর্থনৈতিক বৈষম্যের প্রতিবাদে আগামী ৩০ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ১১টায় মানববন্ধন, ৩১ মার্চ বিকেল তিনটায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভা। এছাড়া এপ্রিল মাস জুড়ে বিভাগীয় এবং জেলা পর্যায়ে কর্মী সমাবেশ করবে ঐক্যফ্রন্ট।

মান্না বলেন, আগামী ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ঐক্যফ্রন্টের নেতারা সকাল ৯টায় সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জেএসডি’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, শহীদুল্লাহ কায়সার, মো. মমিন উল্লাহ, ডাক্তার জাহিদ, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের হাবিবুর রহমান খোকা বীর প্রতীক প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন না ড. কামাল হোসেন ও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আ স ম রব বলেন, আমাদের গণশুনানির যে রিপোর্ট, আমরা চেষ্টা করছি আগামী এক সপ্তাহর মধ্যে ইংরেজি এবং বাংলায় বই আকারে প্রকাশ করে জনগণের মধ্যে বিতরণ করতে। এবং এই গণশুনানির প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, কালো টাকার মালিক, ঋণখেলাপীদের এক পার্সেন্টের বিনিময়ে সমস্ত টাকা মওকুফ করে দেওয়ার বিষয়ে সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আমরা এই বিষয়টিকে প্রত্যাখ্যান করেছি।

আরআর

ad

পাঠকের মতামত

৪ responses to “তরুণ প্রজন্মের ভবিষ্যত অনিশ্চয়তার মুখে: আল্লামা বাবুনগরী”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *