153543

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতকারীদের বিচারের দাবি খেলাফত মজলিসের

আওয়ার ইসলাম: ‘সম্প্রীতির বাংলাদেশ’ নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে নাট্যাভিনেতা পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায় কর্তৃক দাড়ি রাখা ও টাখনুর ওপর কাপড় পরিধানসহ ইসলামের বেশ কিছু মৌলেক বিধিবিধানকে জঙ্গিবাদের লক্ষণ হিসেবে চিহ্নিত করে বিজ্ঞাপন প্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতবাদ জানিয়েছেন খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের।

আজ এক যৌথ বিবৃতিতে দলের নেতৃদ্বয় বলেন, সম্প্রতি ‘সম্প্রীতির বাংলাদেশ’র আহ্ববায়ক পীযুষ বন্ধোপাধ্যায় অনেকগুলো দৈনিক পত্রিকায় ‘জঙ্গী সদস্য’ সনাক্তকরণের জন্যে যে ‘২৩ দফা লক্ষণ’ চিহ্নিত করে বিজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করেছেন তাতে বেশ কিছু বিষয় রয়েছে যা, ইসলাম ও মুসলমানদের মৌলিক আমল তথা বিধিবিধিানের অন্তর্ভূক্ত।

তারা বলেন, এসব বিষয়কে জঙ্গীবাদের লক্ষণ হিসেবে প্রকাশ করে তথাকথিত সংগঠন ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’র ব্যানারে পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায় গংরা ইসলাম ও মুসলমানদের ধর্মীয় আচার-আচারণ তথা বিধিবিধানকে প্রশ্নবিদ্ধ করার হীন প্রয়াস চালিয়েছেন।

তারা আরও বলেন, তাদের ইসলাম বিদ্বেষী এ হীন প্রচেষ্টা মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে চরমভাবে আঘাত হেনেছে। ইসলাম কখনোই জঙ্গীবাদকে সমর্থন করে না। কিন্তু জঙ্গীবাদের ধূয়া তুলে ইসলামী বিধিবিধান ও অনুশাসনকে কলুষিত করার কোন হীন প্রচেষ্টা কোনভাবেই বরদাস্ত করা যায় না।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় সম্প্রীতির নামে অসম্প্রীতির বিষবাস্প ছড়ানোর কাজে নিয়োজিত তথাকথিত সংগঠন ‘ সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ র সকল কার্যক্রম অবিলম্বে নিষিদ্ধ করে মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতকারী পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায় গংদের আইনের আওতায় এনে কঠোর বিচারের দাবি জানান।

আরএম/

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *