157004

ইমরান খানের বিতর্কিত বক্তব্য, পাকিস্তানজুড়ে নিন্দার ঝড়

রকিব মুহাম্মদ: পাকিস্তানের শীর্ষস্থানীয় আলেম ও সাধারণ জনতার তোপের মুখে পড়েছে দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমরান খান।জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে ইসলামের প্রথম দুই যুদ্ধ বদর ও ওহুদ যুদ্ধের বিশ্লেষণ করতে গিয়ে রাসুল সা. ও সাহাবাদের বিষয়ে একটি ভুল তথ্য উপস্থাপন করায় দেশব্যাপী সমালোচিত হচ্ছেন তিনি।

জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে কথা প্রসঙ্গে ইমরান বলেন,বদরযুদ্ধে রাসূলের সা. সঙ্গে মাত্র ৩১৩ জন সাহাবী অংশ নেন। অন্য সাহাবীরা ভয়ে এ যুদ্ধে অংশ নেননি। ওহুদ যুদ্ধ নিয়ে বলেন, ওহুদ যুদ্ধে সাহাবারা রাসূলের সা. আদেশ সত্বেও পাহারার স্থান থেকে সরে যান। এ কারণে ওহুদ যুদ্ধে বিপর্যয় নেমে এসেছিল।

ইমরান খানও তো দেখছি 'আমির' সাবের মতো ইজতিহাদী বয়ান দিতে শুরু করেছে![ইমরান খানের ২০ সেকেন্ডের ভিডিও। কমেন্টে আছে আল্লামা তাকী উসমানির প্রতিবাদী টুইটের নিউজ লিংক আর আল্লামা যাহেদ রাশেদীর প্রতিবাদী ভিডিও লিংক]

Posted by Sharif Muhammad on Wednesday, June 12, 2019

ইমরানের এ বক্তব্যে দেশটির শীর্ষস্থানীয় আলেমরা ইমরানের এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন। রাসূল সা. ও সাহাবাদের নিয়ে ভুল বক্তব্য দেয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায়ও ট্রলের স্বীকার হচ্ছেন ইমরান।

পাকিস্তানের বিশিষ্ট আলেমে ও ইসলামি স্কলার মুফতি মুহাম্মদ তাকি উসমানি তার এক টুইটে ইমরান খানের এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে লেখেন, ওহুদ যুদ্ধে তীরন্দাজ বাহিনীর টিলার দিক থেকে সরে যাওয়া ছিল একটি এজতেহাদী ভুল। এই ভুলের জন্যে তাদেরকে নাফরমান বলা এবং তাদের শানে লুটতরাজের শব্দ ব্যবহার করা চরম বেআদবী।

৩১৩ জন সাহাবী ছাড়া অন্যরা ভয়ে এ যুদ্ধে অংশ নেননি ইমরানের এ বক্তব্যকে চরম মূর্খতা বলেছেন পাকিস্তানের শীর্ষ এ আলেম।  তিনি বলেন, বদর যুদ্ধে সাহাবায়ে কেরাম ৩১৩জন ছাড়া সবাই ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন- প্রধানমন্ত্রীর এহেন বক্তব্য চরম মূর্খতা প্রসূত।

মুফতি তাকি উসমানি আরও লেখেন, ‘বরং প্রকৃত ঘটনা হল, হযরত কাব র. বলেন, বদর যুদ্ধের সিদ্ধান্ত এত দ্রুততার সাথে হয়েছে যে অনেক সাহাবী যুদ্ধের কথা জানতেই পারেননি।

ইমরান খানের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে পাকিস্তানের আরেক আলেম ও কলামিস্ট মাওলানা যাহেদ রাশেদী বলেছেন, ইমরান খান ইসলামি ইতিহাস সম্পর্কে খুবই কম জানেন। সাহাবায়ে কেরাম ও বদর-ওহুদ যুদ্ধ সম্পর্কে তার বক্তব্য সেই কথারই প্রমাণ বহন করে।  পাশ্চাত্য ইতিহাসের সূত্রে তার বক্তব্যে এমন ভুল হয়েছে বলে জানান রাশেদী।

وزیراعظم عمران خان کی غزوہ بدر اور غزوہ احد کا ذکر کرتے ہوئے صحابہ کرامؓ کے حوالے سے متنازعہ گفتگو پر حضرت مولانا زاہدالراشدی صاحب کا تجزیہ …

Posted by ‎Maulana Zahid Ur Rashdi مولانا زاہدالراشدی‎ on Wednesday, June 12, 2019

 

এদিকে,পাকিস্তানের ওলামা কাউন্সিলের নেতা হাফিজ মোহাম্মদ তাহির মাহমুদ আশরাফী ইমরান খানকে ক্ষমা চাওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

পাকিস্তানের ওলামা কাউন্সিলের নেতা হাফিজ মোহাম্মদ তাহির মাহমুদ আশরাফী

তিনি বলেন, বদর ও ওহুদ যুদ্ধ সম্পর্কে ইমরান খান মিথ্যাচার করেছেন। জাতির উদ্দেশে তাকে ক্ষমা চাইতে হবে এবং বক্তব্য স্পষ্ট করতে হবে।

আরএম/

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *