165484

‘মিডিয়া এখন রূপ নিয়েছে গণবিশ্ববিদ্যালয়ে’

জুবায়ের হাসান জিহাদ


এ যেন সত্যিই মজলিশ৷ পূর্ণ মজলিশি ডঙেই কথা বললেন সবাই৷ প্রচণ্ড দরদ আর ভালবাসামাখা ছিল প্রতিটি উচ্চারণ৷ ছিল আত্মিক দায়বদ্ধতায়ও৷ কীভাবে মাদরাসা পড়ুয়ারা পড়াশুনার পাশাপাশি যোগ্যতা অর্জনের অন্যান্য দিকেও অগ্রসর হতে পারে এ নিয়ে তাঁদের সুদীর্ঘ সাধনা৷ একক ও যৌথভাবে তাঁরা বিভিন্ন সময় করে থাকেন কর্মশালা৷ করেন লেখালেখি ও বক্তৃতা৷ বলছিলাম তারুণ্য-নন্দিত দু’জন আলেম-লেখকের কথা৷ মাওলানা শরীফ মুহাম্মদ, মাওলানা লাবীব আব্দুল্লাহ৷

মিডিয়া সম্পর্কে জানতে উদ্গ্রীব৷ কাজ করতে আগ্রহী৷ একঝাঁক নবীনের স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণে মাধ্যমে শরতের রাঙা বিকেলে মুখরিত হয়েছিল ‘মারকাযুল বায়ান লিল আরাবিয়্যাহ ময়মনসিংহ’র মিলনায়তন৷ ‘গণমাধ্যম সচেতনতা মজলিশ’ শিরোনামে ‘শিকড় সাহিত্য মাহফিল’ ও ‘ইন্সটিটিউট অব জার্নালিজম এন্ড দাওয়াহ’ -এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হয় ব্যাতিক্রমী এ মজলিশ৷

মিডিয়ার পরিচয়, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রিক মিডিয়া ছাড়াও আরও যত নতুন গণমাধ্যমের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে এ বিষয়ে কথা বলেছেন বক্তারা৷ প্রধান আলোচক তাঁর বক্তব্যে নতুন একটি বিষয়ের প্রতি গুরুত্বারূপ করে বলেন, “নিউ মিডিয়া এ যুগের অন্যতম শক্তিশালী গণমাধ্যম৷ অর্থাৎ প্রতিজন ব্যাক্তিই যেন একটি সরব মিডিয়া হয়ে উঠতে পারেন এখন যদি তিনি চান৷

যেমন, নিকট অতীতকালে এরদোগানকে যখন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে অপসারণ করতে চেয়েছিল একদল লোক তখন তিনি কিন্তু এই ‘নিউ মিডিয়া’র মাধ্যমেই একটি অডিও ক্লিপ আপলোড দিয়ে বিশাল এই অভ্যুত্থান ঠেকাতে জনতাকে উদ্বুদ্ধ করেন৷”

তিনি আরও বলেন, “এখনকার সময়ে শুধু শিক্ষা আন্দোলন যথেষ্ট নয়৷ প্রয়োজন মিডিয়ায় সরব হওয়া৷ এক সময় ছিল যখন বলা যেত সুশিক্ষার প্রসারই যথেষ্ট৷ কিন্তু সময়ের ব্যাবধানে আজকের সত্য হলো মিডিয়ার মাধ্যমে সঠিক তথ্য ও আইডিয়ার প্রচার না হলে শুধু শিক্ষা দিয়ে বড় কিছু সম্ভব নয়৷ কারণ মিডিয়া এখন রূপ নিয়েছে গণবিশ্ববিদ্যালয়ে৷”

আজকের এই অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা মাহমুদুল হাসান জুনাইদ, মাওলানা মাহমুদুল হক সিদ্দীক৷ অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন, কবি ওয়ালিউল ইসলাম৷

আরএম/

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.