179552

সন্তানকে বাঁচাতে বন্দুকের আঘাতে মৃত্যুর মুখে ফিলিস্তিনি মা

বেলায়েত হুসাইন।।

সন্তানকে দখলদার ইসরায়েলি সৈন্যদের থেকে বাঁচাতে গিয়ে এক ফিলিস্তিনি মায়ের জীবন সংকটাপন্ন। ১৪ বছর বয়সী শিশু সন্তানকে গ্রেফতার থেকে বাঁধা দেয়ায় ইহুদিবাদীদের বন্দুকের আঘাতে মাথার খুলি ভেঙে যায় তার-এতে রিনা দারবিস নামের ৩৬ বছর বয়সী ওই নারী মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন।

আল জাজিরা আরবির একটি প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত দেড় মাস আগে ফিলিস্তিনের রাজধানী অধিকৃত জেরুসালেমের পূর্ব ইসাউইয়া অঞ্চলে ইসরায়েলের বর্ডার গার্ডস ইউনিটের এক সেনাসদস্য রিনা দারবিসকে বন্দুক দিয়ে আঘাত করে এ দুর্ঘটনা ঘটান।

স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক জানান,মাথার খুলি ছাড়াও নাকের হাড়েও মারাত্মক জখমের সৃষ্টি হয়েছে। রিনা দারবিসের স্বামী গণমাধ্যমকে জানান,প্রতিবার আয়নায় চেহারা দেখা মাত্রই হুঁ হুঁ করে কেঁদে ওঠেন তার স্ত্রী।

কারণ, চেহারাটা অসম্ভব ভয়ংকর আকৃতি ধারণ করেছে। সঙ্গে আছে প্রচন্ড ব্যাথা। এখন এই ফিলিস্তিনি মা সংকটময় জীবন অতিবাহিত করছেন।

সম্প্রতি গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন,ইসরায়েলি সৈন্যরা তার সন্তানকে আটক করতে আসলে বাঁধা দেন তিনি, বাঁধা না মেনে তার সন্তানকে তারা তুলে নিয়ে যায়। এদের মধ্য থেকে একজন নিজ সন্তানকে গ্রেফতারে বাঁধা দেয়ার কারণে এই নারীর মাথার সম্মুখভাগে বন্দুকের গোড়ালি দিয়ে আঘাত করে, আর এতেই তার মাথার খুলি ভেঙে যায়। তবে তার সন্তানকে কি কারণে আটক করা হয়েছে কোন পক্ষ থেকেই এ ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

আল জাজিরা অবলম্বনে বেলায়েত হুসাইন এর অনুবাদ

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.