181628

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশপাশে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রয়, প্রদর্শন, বিজ্ঞাপন ও প্রচার-প্রচারণা নিষিদ্ধ

আওয়ার ইসলাম: শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশপাশে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রয়, প্রদর্শন, বিজ্ঞাপন ও প্রচার-প্রচারণা বন্ধে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশনা প্রদান করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

জানা যায়, ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের শিক্ষামন্ত্রণালয়ের বরাবর এক চিঠির প্রেক্ষিতে শিক্ষামন্ত্রণালয় এ নোটিশ জারি করে (স্মারক নম্বর: ৩৭.০০.০০০০.০৬৫৯৯.১০৪.১৭-৪৬১, তারিখ : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯)।

নোটিশে বলা হয়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে বা ভিতরে তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার, বিক্রয়, প্রদর্শন, বিজ্ঞাপন ও প্রচার-প্রচারণা বন্ধে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ ও সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশনা প্রদানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। নোটিশটি বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে মহাপরিচালক বরাবর প্রেরণ করা হয়।

এ বিষয়ে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের সহকারী পরিচালক ও তামাকনিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো: মোখলেছুর রহমান বলেন, আমাদের জরিপে দেখা যায় ৯০.৫% বিদ্যালয় ও খেলার মাঠের ১০০ মিটারের মধ্যে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রয়কেন্দ্র (পয়েন্ট অব সেল) পাওয়া যায়। দেশের বর্তমান জনগোষ্ঠির প্রায় ৩০ শতাংশই তরুণ। দীর্ঘস্থায়ী ভোক্তা সৃষ্টির জন্য তামাক কোম্পানির লক্ষ্যও এই তরুণ জনগোষ্ঠী।

তিনি আরো বলেন, তরুণদের সিগারেট ব্যবহারে আকৃষ্ট করতে তামাক কোম্পানি নানাবিধ প্রচারণা করছে। এই নোটিশ আমাদের আগামী প্রজন্মকে তামাক ব্যবহারের থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করবে, তামাক কোম্পানির কূটকৌশল প্রতিহত হবে এবং আমাদের প্রধানমন্ত্রীর লক্ষ্য ২০৪০ সালের মধ্যেই তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে ভূমিকা রাখবে।

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.