181827

ছড়াকার নাহিদ নজরুলের ‘ছন্দ ওড়ে নন্দপুরে’ আসছে একুশে বইমেলায়

আল আমিন (বাপ্পি): বর্তমান সময়ে যে ক’জন নবীন ছড়াকার জাতীয় দৈনিক পত্রপত্রিকায় প্রচুর লিখছেন, নাহিদ নজরুল তাদের একজন। ‘ছন্দ ওড়ে নন্দপুরে’ তার প্রথম বই।

বইটিতে ছোট-বড় সবার জন্য নানান বিষয় ও স্বাদের ছড়া ওঠে এসেছে। বইটিতে যেমন মহান আল্লাহর সৃষ্টি ও বড়ত্ব, ইসলামের বিভিন্ন বিষয়, পরকাল ভাবনা, ঈমান-আমল, শিক্ষা-দীক্ষা, উপদেশ নিয়ে লেখা হয়েছে। তেমনি আশা-স্বপ্ন, ফুল-পাখি-নদী, প্রকৃতি ও পরিবেশ, অভাবী মানুষের কথা, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, বিজয়, স্বাধীনতা, মাতৃভাষা নিয়েও লেখা হয়েছে।

নাহিদ নজরুল তার বই সম্পর্কে আওয়ার ইসলাম কে বলেন, ‘ছন্দ ওড়ে নন্দপুরে’আমার প্রকাশিতব্য প্রথম ছড়ার বই। ছোট-বড় সবার পাঠ উপযোগী এমন ৬০ টি ছড়ায় সাজানো হয়েছে। প্রতিটি ছড়া একেকটি সুন্দর মেসেজ। ছড়ার মাঝে গতানুগতিক যে প্রচলন রয়েছে,তা থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করা হয়েছে। তবে সর্বাত্মক সতর্কতার সাথে। যাতে ছড়া পাঠের সময় শিশুমনে যে আনন্দ দোলা দেয় তার কোনো কমতি না হয়। সেইসাথে বড়দের বিবেকের দরজায়ও যেন কড়া নাড়ে সেদিকেও খেয়াল রাখা হয়েছে।

ছন্দ-মাত্রা, তাল-লয় ঠিক রেখে সাবলীলতার মোড়কে লেপটানো হয়েছে প্রতিটি ছড়া। ছড়ার বিষয়বস্তু হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে মহান আল্লাহর সৃষ্টি ও বড়ত্ব, ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি, পরকাল ভাবনা, ঈমান-আমল, শিক্ষা-দীক্ষা, উপদেশ ছাড়াও দেশত্ববোধক ও প্রাকৃতিক বিভিন্ন বিষয়ে।

আশা করছি, আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াসটি পাঠক মহলে সাড়া ফেলবে। আগামী একুশে বইমেলায় মোড়ক উন্মোচন করা হবে ইনশাআল্লাহ।

বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মুনিরুল ইসলাম বলেন, নাহিদ নজরুলের লেখালেখির এই আগ্রহ ও ছড়াচর্চার ট্রেনটা না থামলে ছড়াসাহিত্যে অনেকদূর যেতে পারবেন। দিন যত যাবে বিষয়-বৈচিত্র্যের পাশাপাশি তার ছড়ার আঙ্গিকগত বৈচিত্র্যও তৈরি হবে। পুরো বইয়ে সহজ ও পরিচিত অন্ত্যমিলের দোলা দিয়ে গেলেও কোথাও কোথাও খেলা দেখিয়েছেন বৈচিত্র্যময় অন্ত্যমিলের। ছন্দ ওড়ে নন্দপুরে’র মাধ্যমে নাহিদ নজরুলের নাম যুক্ত হলো বাংলা ছড়াকারদের তালিকায়, তার বইটি যুক্ত হলো বাংলা ছড়াসাহিত্যে। এই ছড়াশিল্পী ও শিল্পের জন্য রইল আন্তরিক শুভ কামনা।

-এএ

ad