182591

তিনদিনেও নিহত দুই বাংলাদেশির লাশ ফেরত দেয়নি বিএসএফ

আওয়ার ইসলাম: নওগাঁর পোরশা উপজেলার দুয়ারপাল সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বিএসএফের গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশির লাশ এখনও ফেরত দেয়নি।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বৈঠকে ভারত এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে লাশ ফেরত দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল।

আজ শনিবার বিকাল পর্যন্ত লাশ ফেরত দেয়নি বিএসএফ। নিহত দুজন হলেন উপজেলার নিতপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর বিজলী পাড়া গ্রামের সন্দিপ কুমার ও উপজেলার কাঁটাপুকুর গ্রামের মৃত: জিল্লুর রহমানের ছেলে কামাল হোসেন।

বিজিবি ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার নিতপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামের সন্দিপ কুমার, চকবিষ্ণুপুর দিঘীপাড়ার মফিজ উদ্দিন ও কাঁটাপুকুর গ্রামের কামাল আহমেদসহ ১০/১৫ জনের সঙ্গে পোরশার দুয়ারপাল সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতে প্রবেশ করেন।

বৃহস্পতিবার ভোরে গরু নিয়ে ফেরার পথে বিএসএফের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও মফিজ, কামাল ও সন্দিপ বিএসএফের গুলিতে মারা যান।

বিজিবি সূত্র আরো জানায়, বৈঠকে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে প্রতিবাদ জানায়। বিএসএফ গুলি করে তিন বাংলাদেশিকে হত্যার কথা স্বীকার করে এবং এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে। বৈঠকে লাশের ময়না তদন্তসহ যাবতীয় প্রক্রিয়া শেষে লাশগুলো ফেরত দেওয়ার অঙ্গীকার করে বিএসএফ।

পোরশার নিতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম শাহ বলেন, সীমান্ত এলাকায় নানা ব্যবসায়িক কাজে দুই দেশের মানুষ চলাচল করে। বিচার ছাড়া এভাবে নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করা মানবাধিকার লঙ্ঘন। মানুষকে হত্যা করে লাশ ফেরত না দেওয়াটাও একটা অন্যায়। আন্তর্জাতিক বিধি অনুযায়ী লাশ ফেরত আনতে বিজিবির দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.