184235

বইমেলায় আমিনুল ইসলাম হুসাইনীর গল্পগ্রন্থ ‘আরশজানের বায়স্কোপ’

সাজ্জাদুর রহমান সাজু ।।

সময় এখন বইবসন্তের। তাই তো নতুন নতুন বইয়ের সোঁদা গন্ধে মৌ মৌ এখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। মুগ্ধ বইপোকাদের দল। সেই মুগ্ধতাকে আরো মুগ্ধকর করতে বইমেলায় এলো তরুণ কথাসাহিত্যিক আমিনুল ইসলাম হুসাইনীর গল্পগ্রন্থ ‘আরশজানের বায়স্কোপ’।

বইটির ফ্ল্যাপে নন্দিত কথা সাহিত্যিক, রেডিও টুডে’র সিনিয় নিউজ এডিটর আবিদ আজম লিখেছেন, ‘রীতিমতো চমকে উঠলাম। আশ্চর্যজনক ব্যাপারই বটে। ‘আরশজানের বায়স্কোপ’ নামক ছোট গল্পের পাণ্ডুলিপি পড়ে বিস্ময়ে কিছুক্ষণের জন্য স্তব্ধ হয়ে ছিলাম। পাণ্ডুলিপিতে লেখকের নাম ছিল না। ফলে কয়েকবার লেখকের ফেবু প্রোফেইলে গিয়ে তাঁকে জানার, বোঝার চেষ্টা করলাম।

তরুণ কথাসাহিত্যিক আমিনুল ইসলাম হুসাইনীর রচিত গল্পগ্রন্থ ‘আরশজানের বায়স্কোপ’; কিন্তু পড়ে মনে হলো পরিণত হাতের পরিশ্রমী এক গদ্যশিল্পীর নিপুণ হাতের বুনন। জীবনের বাস্তব-শিল্পীত চিত্রণ। কয়েকটি ফুলেল-মাটিগন্ধ্যা গল্প নিয়ে লেখক সাজিয়ে তুলেছেন তাঁর পাণ্ডুলিপি।

এসব গল্পের শরীরজুড়ে তারুণ্য, সমাজ আর জীবনের অলৌকিক ঘ্রাণ-অঘ্রাণ। শিরোনাম গল্পের আরশজান ছাড়াও চরিত্রগুলো যেন আমাদের পরিচিত, অতি আপন কেউ কিংবা জীবনের সঙ্গে-রক্তের সঙ্গে মিশে থাকা কারো ছায়া-প্রতিচ্ছায়া।আমার ধারণা, এই লেখকের পঠন-পাঠন-অনুধাবন আর প্রজ্ঞার অন্তর্দৃষ্টি গভীর। আমি মনে করি, আধুনিক গল্পের প্রায় সকল বৈশিষ্ট্যই আলোচ্য রচনাগুলোতে রয়েছে। আপাততঃ সমালোচনার কিছু পাচ্ছি না বলে, দুঃখিত। ভালোকে ভালো বলতে কার্পণ্য করবো কেন?’

বইটিতে নানা রস ও ধরনের ৮ টি গল্প রয়েছে। সেসব গল্পে যেমন রয়েছে ব্যঙ্গাত্মক রসবোধ, তেমনই প্রাধান্য পেয়েছে মানুষ, পরিবার, সমাজ রাজনীতি ও রাষ্ট্রের নানা অসঙ্গতির উপাখ্যান। রয়েছে ধর্মকে বিক্রি করা কতিপয় অমানুষের নির্মমতার খণ্ডচিত্র। মোট কথা আমরা এখন যে সময়ের পিঠে পা রেখে দাঁড়িয়ে আছি, তারই বাস্তব চিত্র ভেসে উঠেছে আরশজানের বায়স্কোপে। বইটি পড়তে পড়তে পাঠক যেমন শিহরিত হয়ে ওঠবেন, তেমনই হারিয়ে যাবেন ভাবনার গলিতে। বোধের দরজায় ঠক ঠক করে কড়া নাড়বে বিবেক। এটাই লেখকের স্বকীয়তা, সার্থকতা।

সাজিদুল ইসলামের আঁকা চোখ ধাঁধানো প্রচ্ছদে বইটি প্রকাশ করেছে শাশ্বত প্রকাশন। বইটির প্রচ্ছদ মূল্য ১৪০ টাকা। ২৫ পার্সেন্ট ছাড়ে বইমেলায় স্টল নং ৩৩৭-৩৩৮-তে পাওয়া যাচ্ছে বইটি।

আরএম/

ad