186801

বইমেলা ২০২০: রকমারি ডটকমে আলোচিত ৫টি ইসলামি বই

আব্দুল্লাহ আফফান।।

বাংলাদেশের বাংলা প্রকাশনা শিল্পের অন্যতম একটি অংশ জুড়ে রয়েছে ইসলামি বই। বছরের প্রায় ১২ মাসই বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক ইসলামি বই প্রকাশিত হয় এবং পাঠকের নানামুখী চাহিদা মিটাতে সারা দেশব্যাপী ছড়িয়ে যায়। দেশব্যাপী বই পৌঁছানোর আদি পদ্ধতির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আধুনিক যুগের আধুনিক ছোঁয়া। চলুন, তাহলে দেখি বইমেলা ২০২০-এ দেশের বৃহৎ ই-কমার্স অনলাইন বুকশপ রকমারি ডটকমে আলোচিত ৫টি ইসলামি বই।

১. প্রোডাক্টিভ মুসলিম

প্রোডাক্টিভ মুসলিমএটি মূলত আত্মোন্নয়নমূলক বই। এতে উঠে এসেছে— আত্ম-জাগরণ, আত্মনির্মাণ ও আত্মবিকাশের বিভিন্ন দিক। আমাদের মেধা, সময় ও শক্তিকে কাজে লাগিয়ে ব্যক্তিগঠন, ক্যারিয়ার উন্নয়ন এবং সামাজসেবামূলক কর্মোদ্যোগের মধ্য দিয়ে কীভাবে নিজেকে এক নতুন পৃথিবীর স্বপ্নদ্রষ্টা এবং তার একনিষ্ঠ কারিগর হিসেবে গড়ে তুলবো— রয়েছে তার বাস্তবধর্মী কর্মকৌশল।

ইসলামের শাশ্বত শিক্ষা এবং আধুনিক জ্ঞানবিজ্ঞানের মিশেলে রচিত এ বইটিতে যে প্রোডাক্টিভ লাইফ-স্টাইলের মডেল তুলে ধরা হয়েছে, তা একজন মানুষকে পার্থিব জীবনে সফলতার পাশাপাশি পরকালীন জীবনে উন্নতি সাধনে পথ দেখাবে এক উজ্জ্বল আলোকবর্তিকা হয়ে।

এক নজরে: বই: প্রোডাক্টিভ মুসলিম। মূল লেখক: মোহাম্মদ ফারিস। অনুবাদক: মিরাজ রহমান , হামিদ সিরাজী। প্রকাশনী: গার্ডিয়ান পাবলিকেশনস। প্রচ্ছদ মূল্য: ৩৬৫ টাকা।

২. বেলা ফুরাবার আগে

খুব মন খারাপ? হৃদয়ের অন্দরমহলে ভাঙনের জোয়ার? চারপাশের পৃথিবীটাকে বিস্বাদ আর বিরক্তিকর লাগছে? মনে হচ্ছে, আপন মানুষগুলো দূরে সরে যাচ্ছে? হারিয়ে যাচ্ছে প্রিয়জন, প্রিয়মানুষ? কিংবা অযাচিত-অন্যায্য সমালোচনায় ক্ষতবিক্ষত অন্তর? নিন্দুকের নিন্দায় হৃদয়ের গভীরে দুঃখবোধের প্লাবন? এখনই পড়ে ফেলুন ‘বেলা ফুরাবার আগে’।

এটি মূলত আত্ম-উন্নয়নমূলক বই। দীনের পথে চলতে গিয়ে যে বাধা-বিপত্তি সামনে আসে—সে দিকগুলো নিয়ে মূলত আলোকপাত হয়েছে এখানে। কথা হয়েছে অমিত সম্ভাবনার সে অনন্য দ্বার নিয়েও, যা উন্মুক্ত করলেই মিলবে এক পরম-পবিত্র জীবন। নিজেকে পুনঃঝালিয়ে নিতে ডুব দেয়া যাক ‘বেলা ফুরাবার আগে’।

এক নজরে: বই: বেলা ফুরাবার আগে। লেখক: আরিফ আজাদ। প্রকাশনী: সমকালীন প্রকাশন। প্রচ্ছদ মূল্য: ২৮৭ টাকা।

৩. ইহুদী জাতির ইতিহাস

বহুকাল ধরেই পবিত্র ভূমি নিয়ে চলে আসছে যুদ্ধ-রক্তপাত। কিন্তু কেন? অগণিত লাশের বদ্ধভূমি এ জায়গাটিকে ঘিরে ইহুদী-ইসলাম উভয় ধর্মেরই রয়েছে নিজ নিজ দাবি। গত শতাব্দীর মুসলিম-অধ্যুষিত ফিলিস্তিন আজ হয়ে গেছে ইহুদীদের ইসরায়েল। কিন্তু এ জায়গাটিই কেন চাই তাদের?

ধর্ম বিশ্বাস অনুসারে জেরুজালেম ও এতদাঞ্চলের ওপর তাদের ধর্মীয় দাবিটাই বা কী? জায়োনিজমের উৎপত্তি হলো কোত্থেকে-কীভাবে? প্রকৃতপক্ষে এ-অঞ্চলের আদি নিবাসী কারা? মুসলিম জাতিকে কীভাবে দেখে ইহুদী ধর্ম? হযরত মুহাম্মাদ সা.-এর আবির্ভাবের পর থেকে আজ পর্যন্ত তাঁকে এবং ইসলামকে নিয়ে ইহুদী ধর্মের দৃষ্টিভঙ্গি কী? ইহুদী জাতির পতনই বা হলো কী করে?

এমন হাজারো প্রশ্ন ঘুরপাক খায় অনেকেরই মনে। কিন্তু এ পুরো বিষয়টি নিয়ে সহজ ও প্রাঞ্জল বাংলায় লিখিত বইয়ের বেশ অভাব। এ প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজে বের করতেই পাঠকদেরকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ইহুদী ধর্মের প্রাচীন সময়ে। হাজার বছর আগের মধ্যপ্রাচ্য আর মিসরের মরুপ্রান্তরে। ইসলাম, ইহুদী ও খ্রিস্টধর্মের পৃথক পৃথক দৃষ্টিকোণ থেকে একদম গোড়া থেকে তুলে ধরা হয়েছে এ জাতির ইতিহাসকে। ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ নয় শুধু; ইহুদী কর্তৃক ফিলিস্তিনের পবিত্র ভূমি দখলের আড়ালে যে মতবিশ্বাস ঘাপটি মেরে বসে আছে- তা জানতেও সাহায্য করবে ‘ইহুদী জাতির ইতিহাস’।

এক নজরে: বই: ইহুদী জাতির ইতিহাস। মূল লেখক: আব্দুল্লাহ ইবনে মাহমুদ। অনুবাদক: মুহাইমিনুল ইসলাম অন্তিক। প্রকাশনী: ছায়াবীথি। প্রচ্ছদ মূল্য: ৬০০ টাকা।

৪. স্মার্ট প্যারেন্টিং উইথ মুহাম্মাদ সা.

মুসলিম-জীবনের একমাত্র রোল মডেল নবীজি সা.। জীবনের প্রতি ধাপেই তিনি বিশ্ববাসীর কাছে ‘উসওয়াতুন হাসানা’ তথা উত্তম আদর্শ। কতভাবেই না আমরা বুঝেছি তাঁকে। দয়ার সাগর, আমানতদার, ইনসাফবাদী বিচারক, সামরিক বিশেষজ্ঞ, রাজনৈতিক নেতা, মহান বিপ্লবী, দায়িত্ববান স্বামী, পরম বন্ধু–নানান পরিচয়ে চিনেছি তাঁকে।

এ গ্রন্থে আমরা নবীজির নতুন এক পরিচয় খুঁজে নেবো। আমরা দেখব–একজন পিতা হিসেবে তিনি কেমন ছিলেন, চারপাশের শিশু-সাহাবিদের সাথে তিনি কেমন ছিলেন। কীভাবে তিনি শিশু-প্রজন্মকে আগামীর পৃথিবীর জন্য প্রস্তুত করেছিলেন।

এক নজরে: বই: স্মার্ট প্যারেন্টিং উইথ মুহাম্মাদ সা.। লেখক: মাসুদ শরীফ। প্রকাশনী: গার্ডিয়ান পাবলিকেশনস। প্রচ্ছদ মূল্য: ২০০ টাকা।

৫. ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ২.০

সমাজ বিনষ্টের মূলে এক অর্থে মুসলিম পুরুষরাই। উপমহাদেশে ইসলাম আসার পর নিম্নবর্ণের হিন্দুরা তার ছায়াতলে এসেছে। বিশাল হিন্দু জনগোষ্ঠীর মাঝে মুষ্টিমেয় মুসলিম ব্যক্তিজীবনে ইসলামকে ধারণ করেছে বটে, কিন্তু পারিবারিক জীবন ও সমাজজীবনে হিন্দুয়ানি স্বভাব ছাড়া যায়নি; বরং বংশপরম্পরায় বয়ে চলেছি সেই মানসিকতা। শিখছে সন্তানরাও।

না হয় মুসলিম বিধবারা কেন বাকি জীবন শাদা শাড়ি পরে? কন্যা সন্তানকে কেন নীচু নজরে দেখা হয়? পণের নাম হয়েছে এখানে যৌতুক আর শ্রাদ্ধের নাম হয়েছে কুলখানি-চল্লিশা। প্রতিমাপূজার জায়গা নিয়েছে মাজার বা পঞ্চপীর। এ যেন এক হিন্দুয়ানি ইসলাম। যার যাঁতাকলে পিষ্ট হয়েছে প্রধানত মেয়েরা।

নারীকে ইসলাম যে মর্যাদার, প্রশান্তির, আরামের আর সার্থকতার জীবন দিয়েছিল, হিন্দুয়ানি ইসলাম তা নারীদের থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে। পশ্চিমা সমাজ কিন্তু নারীবাদের ঝলমলে সোনার খাঁচা ঠিকই তাদের কাছে পৌছে দিয়েছে স্যাটেলাইটের মাধ্যমে। অথচ আমরা কিনা আমাদের নিজ ঘরের মেয়েদের কাছেই ইসলামের সুমহান মুক্তির ডাক পৌছাতে পারিনি। ফল হিসেবে চোখ ধাঁধানো শিশিরবিন্দুতে ধোঁকা খেয়ে পশ্চিমা মাকড়সার জালে ঝাঁকে ঝাঁকে ছটফট করছে আমাদের প্রজাপতিরা৷ সেই পুরুষ জাতির অপরাধবোধ থেকেই জন্ম নিয়েছে ‘ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ২.০’।

এক নজরে : ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ২.০। লেখক: ডা. শামসুল আরেফীন। প্রকাশনী: সমর্পণ প্রকাশন। প্রচ্ছদ মূল্য: ৩৯২ টাকা।

বইসমূহ একসাথে পেতে

আরএম/

ad