186815

মালয়েশিয়ায় করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে জুমার পর মসজিদে মসজিদে দোয়া

আওয়ার ইসলাম: আজ শুক্রবার জুমার পর মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরসহ দেশটির বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও খতিবরা বিশ্বের সব দেশকে করোনার সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত রাখতে এবং এ ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের আরোগ্য কামনায় মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেন।

অন্যদিকে মালয়েশিয়ার পার্লিসে জুমার নামাজ স্থগিত ঘোষণা করা হয়। নিজ নিজ ঘরে জুমার পরিবর্তে জোহরের নামাজ আদায় করার জন্য অনুরোধ করা হয়। করোনার সংক্রমণ যেন বিস্তার লাভ করতে না পারে সেই লক্ষ্যেই এমন প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা।

গতকাল বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার ধর্মমন্ত্রী জুলকিফলি মোহাম্মদ আল-বাকরি এক বিবৃতিতে বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনাভাইরাসকে ব্যাপকবিস্তৃত বলে আখ্যায়িত করলে শুক্রবারের জুমার খুতবা সংক্ষিপ্ত করতে ও বাড়িতে অজু করতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন।

জুলকিফলি বলেন, পূর্বসতর্কতা হিসেবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ফেস মাস্ক সরবরাহ করতে হবে সে মোতাবেক হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ফেস মাস্ক সরবরাহ করে শাহ আলম মসজিদ কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার সেরেম্বান এলাকায় চারজনের শরীরে করোনার লক্ষণ পাওয়া যায়। আক্রান্তদের মধ্যে দু’জন সম্প্রতি ইরান ও ভিয়েতনাম থেকে এসেছেন, বাকি দু’জন তাদের পরিবারের সদস্য। তাদের তুনকো জাফর হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এ দিকে ধর্মীয় মাহফিলের ক্ষেত্রে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে মালয়েশিয়া। কুয়ালালামপুরের একটি মসজিদের অনুষ্ঠান থেকে করোনাভাইরাস বিস্তারের ঘটনায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শ্রী পেটালিং মসজিদে চারদিনের মাহফিলে বিভিন্ন দেশ থেকে এক লাখের বেশি লোকের জমায়েত ঘটেছে।

সেখানে অংশ নেয়া অন্তত চারজনের শরীরে করোনাভাইরাস পজেটিভ ধরা পড়েছে। তাদের মধ্যে দুজন সিঙ্গাপুর ও একজন দুবাই থেকে আসা। মালয়েশীয় এখন পাঁচ হাজার নাগরিকের করোনাভাইরাস পরীক্ষার চেষ্টা চালাচ্ছে। তারা সবাই ওই মাহফিলে যোগ দিয়েছিলেন। মালয়েশিয়ায় করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত ১৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। তবে এর মধ্যে কোনো বাংলাদেশি নেই।

নিবিড় পর্যবেক্ষণ শেষে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সুস্থ ঘোষণা করেছে ২৯ জনকে, যারা ইতোমধ্যে ঘরে ফিরেছে। শুক্রবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

-এটি

ad