195718

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কূটনৈতিক লড়াই চায় না চীন

আওয়ার ইসলাম: যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীন কোনো রকমের কূটনৈতিক লড়াই চায় না, বরং ওয়াশিংটনের সঙ্গে উত্তেজনা কমিয়ে বেইজিং সম্পর্ক উন্নয়ন করতে চায় বলে জানিয়েছেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওয়াং ই এ কথা বলেছেন।

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবার দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে চারটি নীতির কথা বলেন। তার মতে, নীতিগুলো হলো- সংঘাত এড়ানো, পরস্পর বিচ্ছিন্ন না হওয়া, সংলাপের জন্য পথ খোলা রাখা এবং দায়িত্ব ভাগাভাগি করে নেওয়া।

উল্লেখ্য, ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৭ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই ওয়াশিংটন-বেইজিং সম্পর্কে উত্তেজনা বিরাজ করছে। দিন যত অতিবাহিত হয়েছে, সেই টানাপোড়েন আরো বেড়েছে। বাণিজ্যযুদ্ধের মাধ্যমে প্রকাশ্যে আসা কূটনৈতিক টানাপোড়েন সর্বশেষ কনস্যুলেট অফিস বন্ধ ঘোষণা পর্যন্ত এসে ঠেকেছে।

এ ছাড়া দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে দুই দেশের মধ্যকার পুরনো উত্তেজনা তো আছেই। সেইসঙ্গে তাইওয়ান ও হংকং ইস্যুতেও সাম্প্রতিক সময়ে উত্তেজনা বেড়েছে চীন-মার্কিন সম্পর্কে। আর সর্বশেষ বর্তমান বিশ্ব মহামারি করোনাভাইরাস নিয়েও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বার বার চীনকে অভিযুক্ত করেছেন। যদিও চীন সে অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, আসছে নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। আর এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ডোনাল্ড ট্রাম্প চীন বিরোধিতা বাড়িয়ে দিয়েছেন, যাতে মার্কিনিদের মন জয় করতে পারেন। তারা বলছেন, নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসবে, ট্রাম্প প্রশাসনের এই চীনবিরোধী প্রচেষ্টা আরো বাড়তে পারে।

তবে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এ বিষয়ে বলছেন, কূটনৈতিক লড়াই চালানো ভুল পদক্ষেপ হিসেবে প্রমাণ হবে। এই এক-বিংশ শতকে এসে যারা কোল্ড ওয়ারের (স্নায়ু যুদ্ধ) সূচনা করবে, ইতিহাসে তারাই ভুল পক্ষ হিসেবে চিহ্নিত হবে। আন্তর্জাতিক সহযোগিতার অবসানকারী হিসেবে তাদেরকে স্মরণ করবে আগামীর বিশ্ব।

-এটি

Please follow and like us:
error3
Tweet 20
fb-share-icon20

ad