বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪ ।। ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ।। ২২ জিলকদ ১৪৪৫


দ্রুত আরোগ্য লাভে যে আমল করতেন সাহাবায়ে কেরাম

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার
ফাইল ছবি

যেকোনো অসুস্থতায় চিকিৎসার পাশাপাশি আল্লাহ তায়ালার কাছে দোয়া করার শিক্ষা দেয় ইসলাম। কেননা দোয়া একটি মহান ইবাদত। হাদিসের বর্ণনায়- ‘মহান আল্লাহর কাছে দোয়ার চেয়ে অধিক সম্মানিত কোনো কিছু নেই।’ (ইবনে মাজাহ: ৩৮২৯)

তাছাড়া আল্লাহ তায়ালা দোয়ার প্রতিদান দিতে পছন্দ করেন। পবিত্র কুরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তোমরা আমাকে ডাকো, আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দেব।’ (সুরা মুমিন: ৬০) 

আল্লাহ তায়ালার একটি গুণবাচক নাম মুজিব বা সাড়া দানকারী। ইরশাদ হয়েছে, ‘নিশ্চয়ই আমার প্রতিপালক নিকটবর্তী ও সাড়া দানকারী।’ (সুরা হুদ: ৬১)

অতএব, মুসলিম উম্মাহর উচিত নানারকম জটিল অসুস্থতায় আল্লাহ তায়ালার সাহায্য চাওয়া। নিশ্চয়ই তিনি বান্দার ডাকে সাড়া দেবেন। এখানে ডেঙ্গুর মতো মারাত্মক অসুস্থতায় আল্লাহর সাহায্য কামনায় তিনটি গুরুত্বপূর্ণ দোয়া তুলে ধরা হলো, যেগুলো আমল করার মাধ্যমে বান্দা সুস্থ হবেন ইনশাআল্লাহ।

১.  أعُوْذُ بِكَلِمَاتِ اللهِ التَّامَّاتِ مِنْ شَرِّ مَا خَلَقَ

‘আউযু বি কালিমা-তিল্লাহি তাম্মাতি মিন শাররি মা খালাক।’

অর্থ- আল্লাহর পূর্ণ কালিমার বিনিময়ে তার সৃষ্টির সব অনিষ্ট থেকে পরিত্রাণ চাচ্ছি। (আবু দাউদ: ৩৮৯৮)

এই দোয়া যেকোনো ক্ষতিকর সৃষ্টির অনিষ্ট থেকে বাঁচতে সবসময় পড়া বাঞ্ছনীয়। ডেঙ্গু-ম্যালেরিয়ার মতো রোগ হয়ে গেলেও এই দোয়া পড়া উচিত, যাতে আল্লাহ বড় ক্ষতি থেকে মুক্ত রাখেন এবং পরিত্রাণ দেন।

২.

اللَّهُمَّ رَبَّ النَّاسِ أَذْهِبْ الْبَاسَ اشْفِهِ وَأَنْتَ الشَّافِي لَا شِفَاءَ إِلَّا شِفَاؤُكَ شِفَاءً لَا يُغَادِرُ سَقَمًا

 ‘আল্লাহুম্মা রাব্বান নাসি উজহিবাল বা’সি, ইশফিহি ওয়া আনতাশ-শাফি, লা শিফায়া ইল্লা শিফায়ুকা শিফায়ান লা ইউগাদিরু সাকমা।’

অর্থ: ‘হে আল্লাহ! মানুষের প্রতিপালক, কষ্ট দূরকারী। আমাকে আরোগ্য দিন, আপনি আরোগ্যকারী—আপনি ছাড়া কোনো আরোগ্যকারী নেই। এমন আরোগ্য দিন যেন কোনো রোগ না থাকে।’ (বুখারি: ৫৭৪২)

৩.  أَسْأَلُ اللَّهَ الْعَظِيمَ رَبَّ الْعَرْشِ الْعَظِيمِ أَنْ يَشْفِيَكَ إِلاَّ عُوفِيَ

 ‘আসয়ালুল্লাহাল আজিম, রাব্বাল আরশিল আজিমি আই-ইয়াশফিয়াকা।’

অর্থ: আমি মহান আল্লাহর কাছে- যিনি মহা আরশের প্রতিপালক তোমার সুস্থতা কামনা করছি।’ (সুনানে তিরমিজি: ২০৮৩)

এই দোয়াটি রোগী পড়বে না, বরং রোগীর জন্য অন্যরা পড়বে। অসুস্থ ব্যক্তির জন্য এই দোয়া পড়া সুন্নত। ইবনে আব্বাস রা. হতে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন, কেউ যদি কোনো রোগীকে দেখতে যায় যার মৃত্যুক্ষণ আসেনি, সে তার জন্য সাতবার এই দোয়া করলে তাকে রোগমুক্ত করা হবে। (সুনানে তিরমিজি: ২০৮৩; মেশকাত: ১৫৫৩)

উল্লেখিত দোয়াগুলো যেকোনো ক্ষতিকর প্রাণীর ক্ষতি থেকে মুক্ত থাকার জন্য এবং নানারকম অসুস্থতায় করা যায় এবং তা সুন্নাহ সমর্থিত আমল। আর মুমিন মুসলমানদের অজানা নয় যে, সুন্নাহ সমর্থিত যেকোনো আমলের কল্যাণ ইহকাল ও পরকালে নিহিত রয়েছে। 

আল্লাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে বিষাক্ত পোকা-মাকড়, মশা-মাছি থেকে সাবধান থাকার তাওফিক দান করুন। ভাইরাসজনিত অসুস্থতা ও মহামারী থেকে হেফাজত করুন। যেকোনো অসুস্থতায় যথাযথ চিকিৎসা নেওয়ার পাশাপাশি উল্লেখিত দোয়াগুলো মাধ্যমে আল্লাহর কাছে সুস্থতা কামনার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এনএ/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ