বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪ ।। ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ।। ২২ জিলকদ ১৪৪৫


আজ বৃষ্টি হতে পারে যেসব এলাকায়

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার
ফাইল ছবি

ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনার ওপর দিয়ে বইছে তীব্র তাপপ্রবাহ। এছাড়া অতি তীব্র তাপপ্রবাহ বইছে পাবনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে। এর মধ্যেই আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানানো হয়, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

রোববার সন্ধ্যায় পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। পাবনা ও চুয়াডাঙ্গা জেলার ওপর দিয়ে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। রাজশাহী, টাঙ্গাইল, যশোর ও কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। 

শ্রীমঙ্গল ও চাঁদপুর জেলাসহ ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশ এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এতে আরও বলা হয়, রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করতে পারে।

চলমান তাপপ্রবাহের ধারা পুরো এপ্রিলজুড়েই অব্যাহত থাকবে। বুধবার ও বৃহস্পতিবার বৃষ্টি হতে পারে। এতে তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও শুক্রবার থেকে ফের বাড়বে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, সহসাই বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই রাজধানীতে। 

কয়েকদিন ধরেই রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ। তীব্র তাপপ্রবাহে শরীরের ত্বক পুড়ে যাওয়ার উপক্রম। এমন পরিস্থিতিতে তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে জানিয়ে হিট অ্যালার্টও জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এদিকে, উচ্চ তাপমাত্রা অনুভূত হওয়ায় একপ্রকার বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ। এছাড়া তীব্র তাপপ্রবাহে গত কয়েকদিনে ডিহাইড্রেশন, জ্বর ও হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন অনেকে। 

এনএ/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ