মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪ ।। ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ ।। ১৭ মহর্‌রম ১৪৪৬


ঝগড়ায় মহতী কাজ ব্যাহত হয়

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার
ফাইল ছবি

|| নাজমুল হুদা মজনু ||

আমাদের সমাজের মধ্যে এমন কিছু ভাই রয়েছে যাদের চালচলন-পোশাক-আশাক দেখে ভদ্রলোক‌ই মনে হয়; কিন্তু তারা বগলে বহন করে বিষের বাণ। তারা অতিশয় ঝগড়াটে। সামান্য বিষয় নিয়ে ঝগড়াঝাটি শুরু করে। এই কলহপ্রিয় লোকের কারণে অনেক মহতী কাজ ব্যাহত হয়। এ-সংক্রান্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ হাদিস রয়েছে।

উবাদা ইবনুস সামিত রা. থেকে বর্ণিত—
তিনি বলেন, একদা নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদেরকে লাইলাতুল ক্বদরের (নির্দিষ্ট তারিখ) অবহিত করার জন্য বের হয়েছিলেন। তখন দু’জন মুসলমান ঝগড়া করছিল। তা দেখে তিনি বললেন, আমি তোমাদেরকে লাইলাতুল ক্বদরের সংবাদ দেয়ার জন্য বের হয়েছিলাম, তখন অমুক অমুক ঝগড়া করছিল, ফলে তার (নির্দিষ্ট তারিখের) পরিচয় হারিয়ে যায়। (বুখারি-২০২৩)
মানুষ দুনিয়ার জমিনে দম্ভভরে চলার কারণে অনেকসময় পরস্পর সম্প্রীতি বজায় রাখতে ব্যর্থ হয়। তবে আল্লাহ তায়ালার অশেষ রহমতে যারা নিজেদের বড়ত্ব জাহিরে লিপ্ত হ‌ওয়ার বদলে আল্লাহর ভয়ে  ভীত থাকে তারাই অবশেষে কামিয়াব হয়।

আল্লাহ রাব্বুল আলামিন কুরআন মাজিদে বলেন-
(তােমাদের) পুরুষ কিংবা নারীর মধ্যে যে ব্যক্তিই কোনাে নেক কাজ করবে এমতাবস্থায় যে, সে হবে যথার্থ মুমিন, তাহলে অবশ্যই তাকে আমি দুনিয়ার বুকে পবিত্র জীবন দান করব এবং আখেরাতের জীবনেও তাদের (দুনিয়ার) জীবনের কার্যক্রমের অবশ্যই উত্তম বিনিময় দান করব।(আন-নাহল-৯৭)

চলার পথে পরম পাথেয় হলো আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে দোয়া করার তৌফিক লাভ করা।

রাহমানির রাহিম আল্লাহ তায়ালা কুর‌আনুল কারিমের মাধ্যমে বান্দাদের দোয়া করার পদ্ধতি শিক্ষা দিয়েছেন। সুবহানাল্লাহ কত যে দয়ালু আমাদের আল্লাহ! আল্লাহ রাব্বুল আলামিন
কুরআন মাজিদে এভাবে দোয়া শিখিয়েছেন—
হে আমাদের মালিক যদি আমাদের থেকে কোনো ভুলত্রুটি হয়ে যায় অথবা কোনো দায়িত্ব পালনের কথা যদি আমরা ভুলে যাই তাহলে আমাদের তুমি পাকড়াও করো না, হে মালিক আমাদের ওপর এমন কোনো বোঝা চাপিয়ো না যেমনি তুমি চাপিয়েছিলে আমাদের আগের লোকদের ওপর, হে মালিক যতটুকু বোঝা বইবার ক্ষমতা আমাদের নেই সে পরিমাণ বোঝা আমাদের কাঁধে রেখো না, তুমি আমাদের গুনাহখাতা মুছে দিয়ে আমাদের ক্ষমা করে দাও, আমাদের ওপর দয়া করো, তুমিই আমাদের একমাত্র অভিভাবক, তুমি কাফেরদের ওপর আমাদের বিজয় দান করো। (বাকারাহ-২৮৬)

মনে রাখতে হবে, ঝগড়াটে মানুষকে আল্লাহ তায়ালা এবং আল্লাহর বান্দারা কেউই ভালো বাসে না। তা ছাড়া দ্বীন কায়েমের সংগ্রামে পরস্পর সম্প্রীতি ও ঐক্যের বিকল্প নেই।

আল্লাহ রাব্বুল আলামিন কুরআনুল কারিমে মুমিনদের ঐক্যবদ্ধ থাকার নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, আর তোমরা সবাই আল্লাহর রজ্জুকে দৃঢ়ভাবে ধারণ করো এবং বিচ্ছিন্ন হয়ো না। আর তোমরা তোমাদের ওপর আল্লাহর নিয়ামতকে স্মরণ করো, যখন তোমরা পরস্পরে শত্রু ছিলে। তারপর আল্লাহ তোমাদের অন্তরে ভালোবাসার সঞ্চার করেছেন।

অতঃপর তাঁর অনুগ্রহে তোমরা ভাই-ভাই হয়ে গেলে। আর তোমরা ছিলে আগুনের গর্তের কিনারায়, অতঃপর তিনি তোমাদেরকে তা থেকে রক্ষা করেছেন। এভাবেই আল্লাহ তোমাদের জন্য তাঁর আয়াতগুলো বয়ান করেন, যাতে তোমরা হিদায়াতপ্রাপ্ত হও। (আলে ইমরান-১০৩)
আল্লাহ তায়ালা যেন আমাদের তৌফিক দান করেন উল্লিখিত আয়াতে কারিমার ওপর আমল করে তাঁর খাঁটি বান্দা হ‌ওয়ার।

লেখক : আলোচক ও সাংবাদিক

এনএ/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ