145578

নিউজিল্যান্ডে হামলায় স্বামী-পুত্রকে হারিয়েও গর্ব করছেন এই নারী

হামিম আরিফ: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দু’টি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় স্তব্ধ পুরো বিশ্ব। এ সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ জন শহীদ হয়েছেন। শেতাঙ্গ সন্ত্রাসী কর্তৃক এ হামলায় হৃদয় ভেঙেছে পুরো বিশ্বের।

তবে ওই হামলায় স্বামী ও পুত্রকে হারিয়েও এতটুকু আপসোস নেই পাকিস্তানের শহীদ নাইম রশিদের স্ত্রীর।

জিও টিভির এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমার স্বামী নাইম রশিদ ও ছেলে তলহা খুবই ভালো মানুষ ছিলো। তারা মানুষকে বাঁচাতে গিয়ে শহীদ হয়েছেন। আমার জন্য এটা খুবই গর্বের। আমি এ জন্য দু:খিত নই।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসীর জন্য দু:খ হয়। তার অন্তর বিদ্বেষ ও ঘৃণায় ভরপুর। তার হৃদয়ে কোনো ভালোবাসা নেই। কিন্তু আমাদের অন্তরে ভালোবাসা আছে। আমরা মানুষকে ভালোবাসতে জানি।

তিনি আরও বলেন, আল্লাহর হুকুম পালনে গিয়ে যারা শহীদ হন তারাদের জন্য দু:খ নেই। তারা তো জান্নাতি। দীন তো এটাই কামনা করে। আমি গর্বিত যে তারা শহীদি মৃত্যু লাভ করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে খ্রিস্টান শেতাঙ্গ কর্তৃক নামাজরত মুসল্লিদের ওপর নৃশংস হামলা হয়। এতে ৫০ জন শহীদ হন। এদের মধ্যে পাকিস্তানের নাগরিক রয়েছেন ৯ জন।

সূত্র: জিও নিউজ

ad

পাঠকের মতামত

One response to “মিশর থেকে ফেরআউনের মাথা এখন লন্ডনে!”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *